IQNA

17:18 - August 14, 2019
সংবাদ: 2609076
আন্তর্জাতিক ডেস্ক: ইসলামি প্রজাতন্ত্র ইরানের সর্বোচ্চ নেতা আয়াতুল্লাহিল উজমা খামেনেয়ী বলেছেন, সৌদি আরব, সংযুক্ত আরব আমিরাত ও তাদের মিত্ররা ইয়েমেনে মারাত্মক অপরাধযজ্ঞ চালিয়ে যাচ্ছে এবং তারা ইয়েমেনকে খণ্ড-বিখণ্ড করতে চায়। এ অবস্থায় তাদের এই ষড়যন্ত্র ঐক্যবদ্ধভাবে রুখে দিতে হবে।

পার্সটুডের উদ্ধৃতি দিয়ে বার্তা সংস্থা ইকনা'র রিপোর্ট: তিনি মঙ্গলবার সন্ধ্যায় ইয়েমেনের প্রতিনিধি দলের সঙ্গে বৈঠকে এসব কথা বলেন। এ সময় সর্বোচ্চ নেতা আগ্রাসীদের বিরুদ্ধে সফল প্রতিরোধ গড়ে তোলার জন্যে ইয়েমেনি জাতিকে অভিনন্দন জানিয়ে বলেন, মজলুমদের বিজয় অবশ্যম্ভাবী। তিনি বলেন, ইয়েমেনি জনগণের জন্য একটি সুন্দর ভবিষ্যত অপেক্ষা করছে এবং আল্লাহর রহমতে তারা একটি শক্তিশালী সরকার গঠন করবে ও ওই সরকারের তত্ত্বাবধানে উন্নতি ও অগ্রগতি অর্জন করবে।

তিনি বলেন, ইয়েমেনে রয়েছে বিভিন্ন ধর্ম ও গোষ্ঠীর মানুষ, এ কারণে দেশটির অখণ্ডতা রক্ষায় ইয়েমেনিদের নিজেদের মধ্যে আলোচনা প্রয়োজন। তিনি ইয়েমেন ও ফিলিস্তিনের মানুষের ওপর আগ্রাসীদের অব্যাহত অপরাধযজ্ঞের বিষয়ে পাশ্চাত্যের নীরবতার সমালোচনা করে বলেন, এই পরিস্থিতি হচ্ছে বর্তমান বিশ্বের একটি বাস্তব নমুনা।

তিনি বলেন, আমেরিকা ও পাশ্চাত্যের বিরুদ্ধে ইসলামী ইরান যে অবস্থান নিয়েছে তা কোন ধরনের হিংসা-বিদ্বেষ থেকে নয় বরং আমেরিকাসহ পাশ্চাত্যের দেশগুলোর কর্মকাণ্ড ও বাস্তব পরিস্থিতির আলোকে এ সিদ্ধান্ত নেয়া হয়েছে, কারণ আমেরিকাসহ পাশ্চাত্যের দেশগুলো বাহ্যিকভাবে মানবতা, সভ্যতা ও নৈতিকতার কথা বললেও তারাই সবচেয়ে ঘৃণ্য অপরাধ চালিয়ে যাচ্ছে।

এসময় ইয়েমেনের প্রতিনিধি দলের প্রধান ও আনসারুল্লাহর মুখপাত্র আব্দুস সালাম ইরানের সর্বোচ্চ নেতাকে বলেন, আমরা আপনাকে এই প্রতিশ্রুতি দিচ্ছি ইয়েমেনি জাতি ঐক্যবদ্ধভাবে আগ্রাসন মোকাবেলা করে যাবে।   iqna

 

নাম:
ই-মেল:
* আপনার মন্তব্য: